শিরোনাম

করোনাকালীন বাংলাদেশের ফুটবল

মুহাম্মদ ইলিয়াছ | ২৪ জুন ২০২০ | ৯:৩১ অপরাহ্ণ

করোনাকালীন বাংলাদেশের ফুটবল

আমরা গতকাল থেকে “বাংলাদেশের করোনাকলীন ফুটবলে” শিরোনামে একটি ধারাবাহিক নিউজ তুলে ধরেছি। গতকালের আলোচনায় বাংলাদেশের খেলোয়াড় তৈরির কারখানা তথা বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এককজন ফুটবল কোচ জনাব হাসান আল মাসুদের দেয়া তথ্য তুলে ধরেছি। তারই ধারাবাহিকতায় আজ আমরা আরেকজন খ্যাতিমান ফুটবল কোচ জনাব মোঃ কামাল বাবু যিনি অনেক বড় বড় ফুটবল দলের কোচিংয়ের দায়িত্বে থেকেছেন। বর্তমানে তিনি সাইফ যুব দলের হেড কোচের দায়িত্বে তার বক্তব্য তুলে ধরব।

ছবি-মোঃ কামাল বাবু, ফুটবল কোচ, সাইফ যুব দল ও সাইফ 17/18/19 হেড কোচ ।

আজ সারা পৃথিবীর ক্রীড়াঙ্গনসহ সমস্ত কিছু স্হবির।ইতিমধ্যেই সারা পৃথিবীর প্রায় দেশেই লগ ডাউন শিথিল করে মানুষ সামান্য পরিসরে কাজে ফিরেছে।কিন্তু সবাইরতো কাজের একটা ক্ষেত্র আছে,আমরা যারা ক্রীড়া ক্ষেত্রে কাজ করি তারা এখন কোথায় যাবো,তাদের কাজের ক্ষেত্র কোথায় । আজ সংগঠক,কোচ,খেলোয়াড়,রেফারি,ক্লাবের কর্মচারী সবাই আজ বেকার । আমাদের মধ্যে কেউ জানিনা আবার কবে আমরা আগের মত কাজে ফিরতে পারবো।

প্রিমিয়ার লীগের কিছু খেলোয়াড়,কোচ ও সংগঠক ছাড়া বাকি সবাই আজ হতাশাগ্রস্ত,অভাব গ্রস্হ তাদের চোখে,মুখে আজ রাজ্যের হতাশা, নেই কোন সুন্দর আগামীর প্রত্যাশা । এমন অনেক খেলোয়াড় আছে যারা সামান্য বাঁচার জন্য সামান্য সাহায্য চেয়ে বার বার আকুতি জানাচেছ। তাই বলতে চাই করোনা পরিস্থিতিতে ভালো নেই আমরা, ভালো নেই তৃণমূল ও জুনিয়র লেভেলের খেলোয়াড়রা ।

একটা দেশের মজবুত ভিত তৈরি হয় তৃণমূল এবং জুনিয়র খেলোয়াড় তৈরির মাধ্যমে। অথচ ওদের খবর কেউ নেয় না। আজ বৈশ্বিক মহামারী সময় হয়তো তারা দিনের পর দিন কষ্ট সহ্য করতে না পেরে অন্য কোন পেশায় চলে যাবে।মারাত্মক ক্ষতি হবে আমাদের আগামীর ফুটবলের,সম্ভবনাময় খেলোয়াড়দের অভাবে মুখ থুবড়ে পড়বে আগামীর পাইপ লাইন।

অক্সিজেন ছাড়া যেমন কিছু বাঁচে না তেমনি তৃণমূল ও জুনিয়র লেভেলের খেলোয়াড় না আসলে আগামী ফুটবল ও অন্ধকারময় । তাই নিরবিধায় বলতে চাই করোনা পরিস্থিতি তে ভালো নেই আমরা। ভালো নেই ফুটবল ও ফুটবল সংশ্লিষ্ট সবাই।এই করোনা মহামারীর সময় আল্লাহ্ আপনাদের সবাইকে অনেক ভালো রাখুক,সুস্থ রাখুক ।

চলবে..

Facebook Comments

সংবাদ ও সাংবাদিকতা কি?

প্রবাসীদের ইউটিউব থেকে আয়

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১