• শিরোনাম

    একজন শাদা মনের মানুষ শফিকুল ইসলাম দুলু

    শেখ হুমায়ূন কবির | ৩১ মে ২০১৯ | ৪:৫৩ পূর্বাহ্ণ

    একজন শাদা মনের মানুষ শফিকুল ইসলাম দুলু

    একজন শাদা মনের মানুষ শফিকুল ইসলাম দুলু

    বর্তমান এমপি ইকবাল হোসেন সবুজের দূর্দিনে যে কয়েকজন নেতা তার পাশে ছিলেন তাদের মধ্যে অন্যতম শফিকুল ইসলাম দুলু। বলা যায় যৌবনের পুরোটা সময় তিনি ইকবাল হোসেন সবুজের সাথে ছায়ার মত থেকেছেন। থেকেছেন দুর্দিনে যেমনি এখন আছেন। বিনাবাক্যে যার প্রতিটি কথা অক্ষরে অক্ষরে পালন করেছেন। তিনি আপাদমস্তক একজন মুজিব সৈনিক। ভালোবাসার প্রিয় সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, ভালোবাসেন মাতৃতুল্য জননেত্রী শেখ হাসিনাকে। ভালোবাসেন বলে দলের জন্য নিজের সহায় সম্বল ঢেলে দিয়ে এখন তিনি নিঃস্ব প্রায়। তবে এত কিছুর পরেও সান্ত্বনা হিসেবে নিয়েছেন যে দলমত নির্বিশেষে সকলের প্রিয় মানুষ হতে পেরেছেন বলে।

     

    মানুষটির সাথে দুই দশক ধরে পরিচয়। স্থানীয় আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেন। যিনি রাজনীতিতে জননেতা ইকবাল হোসেন সবুজের নীতি আদর্শকে বুকে আগলে রেখেছেন। জাতির পিতার আদর্শ লালন করছেন সেই শিশুকাল থেকে। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে নিজেকে তৈরি করছেন প্রতিনিয়ত। বলছেন নিজ ইউনিয়নের জনগনের পক্ষ নিয়ে। যা ইতোমধ্যে সর্বজন জ্ঞাত। বিশেষ করে শফিকুল ইসলাম দুলু একজন ক্লীন ইমেজের রাজনীতির উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত ও বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বরের অধিকারী। যার জন্য তিনি আলাদা ভাবে নিজ ইউনিয়ন আওয়ামিলীগ নেতাকর্মীদের মাঝে জায়গা করে নিতে পেরেছেন। তাঁর সততা ও আদর্শ প্রতিনিয়তই যে কাউকেই মুগ্ধ করে। ব্যাক্তি ইমেজের ভেতর খুঁজে পাওয়া যায় মা মাটির গন্ধ। তাঁর বিশেষ গুণ হল সদা মিষ্টিভাষী, বিনয়ী ও সুবক্তা।

     

    দুই দশক ধরে দেখা মানুষটিকে মূল্যায়ন করতে গেলে এটা স্পষ্ট যে কূলষিত রাজনীতির পাদদেশে দাঁড়িয়েও যিনি ভাবেন অনাগত জীবনের কথা। জনপ্রিয়তা যার মানবিক সত্তাকে অহংকারী করেনি বরং করেছে অতি মানবিক। জীবন তাকে নিয়ে গেছে সাধারণ মানুষের গভীরে-জীবনের কাছাকাছি। তাছাড়া শফিকুল ইসলাম দুলুর ব্যক্তিত্ব, গ্রহণযোগ্যতা, জনপ্রিয়তা হিমালয়সম। তাকে অতিক্রম করার মত নেতৃত্ব এই মূহুর্তে মাওনা ইউনিয়ন আওয়ামিলীগে একজনও নেই। তার অাকাশ ছোঁয়া জনপ্রিয়তার কারণেই তিনিই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের একমাত্র মুকুটবিহীন সম্রাট। শুধু তাই নয়, মাননীয় এমপি মহোদয়ের আদর্শ অনুকরণ করে নিজ ইউনিয়ন আওয়ামিলীগ ও স্থানীয় জনগনের হৃদয়ে বেঁচে থাকবেন যুগের পর যুগ।

     

    প্রায় সময় মানুষটির সাথে কথা হয়। নিজের চাওয়ার পাওয়ার বিষয়টি কখনোই বুঝতে দেন না। ক্ষমতা-পদ বিমুখ এই মানুষটি কখনো নিজের না পাওয়া কষ্টগুলো কাউকে বুঝতেও দেন না। তবে তার ইচ্ছা ইকবাল হোসেন সবুজের পাশে থেকে আমৃত্যু নিজ ইউনিয়নের জনগণের জন্য কাজ করে যাবেন। প্রয়াত বাবা সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল বারেক এর অসমাপ্ত স্বপ্নের বাস্তবায়ন করাই এখন একমাত্র ব্রত।

    মুকুটহীন তরুণ প্রজন্মের সম্রাট এবং বঙ্গবন্ধুর অাদর্শের একনিষ্ঠ সৈনিক, সৎ, নির্ভীক ও শেখ হাসিনার অতন্দ্রপ্রহরী। জীবন যাকে দিয়েছে বর্ণীল সততা। তাঁর মত পরিচ্ছন্ন বিনয়ী ও মানবতার মূর্ত প্রতিক স্থানীয় রাজনীতির এই ক্লীন ইমেজের নেতৃৃত্বের প্রতি ফুলেল শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। যিনি ইকবাল হোসেন সবুজের মত বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করেন। যার দেশপ্রেম, মানবতা, আদর্শ হাজারো তরুণ প্রজন্ম অনুকরণ করে। আমি বিশ্বাস করি দল অবশ্যই শফিকুল ইসলাম দুলুর মত কর্মিবান্ধব নেতাদের মূল্যায়ন করবে। এবং অচিরেই দীপ্ত পদচারণায় মুখরিত হবে সৎ রাজনীতির মঞ্চ, এবং মাওনা ইউনিয়ন আওয়ামিলীগ ও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ তার নেতৃত্বের অপেক্ষায় আছে বলেই বিশ্বাস করি।

    সবশেষে এই মানুষটির জন্য শুভকামনা রইল। আমরা বিশ্বাস করি, শফিকুল ইসলাম দুলুর মত একজন নির্লোভ রাজনৈতিক ব্যাক্তিকে দল অবশ্যই মূল্যায়ন করবে। তার মত যোগ্য ব্যাক্তিকে মাওনা ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের দায়িত্ব দিয়ে পরিচ্ছন্ন রাজনীতির চর্চা শুরু হবে। কেননা সুখে দুখে সব সময় শফিকুল ইসলাম দুলুকেই মাওনা ইউনিয়নের মানুষ পাশে পায়।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০  
  • ফেসবুকে নতুনকণ্ঠ